৪/৫২ প্লিজিং ব্লার – ৫২ সপ্তাহ ফটোগ্রাফি চ্যালেঞ্জ ২০১৬

_MG_2931
Canon 6D + 70-200 f2.8 IS II USM at 135 mm, ISO 400, f/4, 1/4

আজ ২০১৬ সনের জানুয়ারি মাসের চব্বিশ তারিখ। চতুর্থ সপ্তাহ। ৫২ সপ্তাহ ফটোগ্রাফি চ্যালেন্জের চতুর্থ সপ্তাহের ছবি পোস্ট করার সময় হয়ে গেল।

গত সপ্তাহে কিসের ছবি তোলা যায় সেটা নিয়ে চিন্তা করছিলাম। এমন সময় ছোট মেয়েটা এসে বলল সে নতুন জামা পড়েছে অতএব তার ছবি তুলে দিতে হবে। কোথায় তুলতে হবে সেটাও সে ঠিক করেছে। টেনে নিয়ে তার ঘরে গেল। সেখানে তার একটা ছোট পড়ার/খেলার টেবিল, তার উপর অনেকগুলো রঙবেরঙের খেলনা সাজানো। আছে কাপ, পিরিচ, আর একটা বড় পুতুল। Continue reading “৪/৫২ প্লিজিং ব্লার – ৫২ সপ্তাহ ফটোগ্রাফি চ্যালেঞ্জ ২০১৬”

৩/৫২ লাল রঙ – ৫২ সপ্তাহ ফটোগ্রাফি চ্যালেঞ্জ ২০১৬

Rising Red

লক্ষ্য ছিল শৈল্পিক লাল। অনেক খুঁজেছিলাম শৈল্পিক লাল ছবি তোলার জন্য। সময় একসময় শেষ হয়ে গেল। এরই মধ্যে একদিন বিকেলে জানালা দিয়ে আলো এসে পড়েছিল ক্যানন প্রিন্টারের বাক্সের উপর। এই বাক্সটাকে আমি প্রিন্টারের ডেস্ক হিসেবে ব্যবহার করি। এই বাক্সের উপরেই প্রিন্টার রাখি।

সূর্য আস্তে আস্তে হেলছিল পশ্চিম আকাশে আর সেই সাথে পরিবর্তিত হচ্ছিল ছায়ার রূপ। একটার পর একটা ছবি তুলে যাচ্ছিলাম বিভিন্ন কোণ থেকে। ক্রমে ক্রমে সময় ছায়া কেটে আলো এলো, তারপর আলো শেষে ছায়া এলো। এই ছবিটাই বেশী ভালো লাগলো।

Canon EOS 6D + EF 100 mm f2.8 Macro USM ISO 100, f/2.8 1/30

Permanent link:

http://wp.me/p50qEk-5j

২/৫২ আরবান ল্যান্ডস্কেইপ – ৫২ সপ্তাহ ফটোগ্রাফি চ্যালেঞ্জ ২০১৬

দ্বিতীয় সপ্তাহের টার্গেট ল্যান্ডস্কেইপ। আমি বেছে নিয়েছি আরবান ল্যান্ডস্কেইপ।

কলোরাডোতে এখন শীতকাল। ল্যান্ডস্কেইপ তোলা সহজ কর্ম নয়। তাই একটু ফাঁকি দিলাম। গিয়েছিলাম গোল্ডেন শহরে একটা দাওয়াতে। তখনই ঠিক করি আরবান ল্যান্ডস্কেইপ করবো। গোল্ডেনে লুকআউট মাউন্টেন বলে একটা জায়গা আছে। সেখানে গাড়ি নিয়ে ওঠা যায়। এর আগে একবার উঠেছিলাম। তখন বেশ কিছু ভালো ছবি পেয়েছিলাম। তার কয়েকটা ছবি নিসর্গে পোস্ট করেছিলাম। Continue reading “২/৫২ আরবান ল্যান্ডস্কেইপ – ৫২ সপ্তাহ ফটোগ্রাফি চ্যালেঞ্জ ২০১৬”

ছোট মেয়ের গল্পের বই

ছোট বেলায় লেখার অভ্যাস থাকলেও বড় বেলায় এসে অভ্যাসটা চলে গিয়েছিল। তারপর অনেকদিন ব্লগে লিখেছি। মাঝখানে বেশ কিছুদিন বিরতির পর আবারো লেখার ইচ্ছা জেগে উঠেছে। লেখা মানে সময়কে ওয়েবের পাতায় ধরে রাখা। আগে ডাইরির পাতায় মানুষ স্মৃতিকথা লিখে রাখতো। ডাইরি হয়তো এখনো কেউ কেউ লেখে। তবে ওয়েবেই স্বাচ্ছন্দ বেশী পাই। Continue reading “ছোট মেয়ের গল্পের বই”

বই পড়া – জাভা প্রোগ্রামিং

গত সামারে হঠাৎ কী মনে করে জাভা প্রোগ্রামিং এর উপর একটা বই কিনে পড়া শুরু করলাম। গল্পের মতো পড়া। বহু বছর আগে নটর ডেম কলেজের বড় ভাই বলেছিলেন যদি জাভা আর সি প্লাস প্লাস শেখ তাহলে ভবিষ্যতে অনেক কাজে লাগবে। আজ প্রায় বিশ বছর পর সেই কথাটা মনে পড়ছে। সত্যিই যদি এত দীর্ঘ সময় কোন ল্যঙ্গুয়েজ নিয়ে কাটানো যায়, সেই ভাষায় দক্ষতা আসবে এমনটা হয়তো বলা যায়।

Continue reading “বই পড়া – জাভা প্রোগ্রামিং”